ঢাকা, ২৮ সেপ্টেম্বর সোমবার, ২০২০ || ১৩ আশ্বিন ১৪২৭
 নিউজ আপডেট:

প্রথম পদায়ন ও যোগদানকারী সহকারী কমিশনার (ভূমি)কে বরণ করলেন তারাকান্দা উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ।

ক্যাটাগরি : সবারকথা বিশেষ প্রকাশিত: ৬৪৭ঘণ্টা পূর্বে   ১০৫


প্রথম পদায়ন ও যোগদানকারী সহকারী কমিশনার (ভূমি)কে বরণ করলেন তারাকান্দা উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ।

 

নীহার বকুল : স্টাফ রিপোর্টার।

 

ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলাটির পূর্নাঙ্গরূপ লাভ করলেও বড় একটি সমস্যা ছিলো ভূমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে জটিলতা।ক্রমান্বয়ে সকল পদ সৃষ্টি ও পদায়ন হলেও সহকারী কমিশনার (ভূমি) এসিল্যান্ড পদটি শূন্যতার জন্য বা পদায়ন না হওয়ায় ফুলপুর উপজেলায় জমির নামজারি খারিজ, পরিমাপ সহ অন্যান্য কাজে ফুলপুর যেতে হতো,আর একজন এসিল্যান্ড ২টি উপজেলার কাজ করতে গিয়ে সময়ক্ষেপণ সহ সুবিধাভোগীদের পড়তে হতো নানান বিড়ম্বনায়।দিনের পর দিন আটকে থাকতো ফাইল! যার ফলে জমি কেনাবেচায় নেমে এসেছিলো একধরণের স্থবিরতা।

সেখান থেকে এলাকার জনসাধারণকে মুক্তি দিতে বিষয়টি জরুরি জনগুরুত্বপূর্ণ বিধায় বর্তমান ইউএনও জান্নাতুল ফেরদৌস ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসক ও মাননীয় গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী ১৪৭,ময়মনসিংহ -২ (ফুলপুর-তারাকান্দা)সংসদ সদস্য জননেতা শরীফ আহমেদ এর কাছে এসিল্যান্ডের পদায়ন ও নিয়োগের জন্য সার্বক্ষণিক যোগাযোগ করেন। মাননীয় প্রতি মন্ত্রীমহোদয়ের ঐকান্তিক প্রচেষ্টার ফলে অবশেষে উপজেলার জনসাধারণের মনের আশার পূর্ণতা পায়।

তারাকান্দা উপজেলার প্রথম এসিল্যান্ড হিসেবে যোগদান করেন তাহমিনা আক্তার।জুলাই মাসে যোগদান করলেও অফিসসহ অন্যান্য প্রক্রিয়া শেষ করে ৩০আগষ্ট তিনি ১ম অফিসে বসেন। দিনটি ছিলো উপজেলাবাসির জন্য ঐতিহাসিক একটি দিন। নবাগত ও সর্বপ্রথম এসিল্যান্ডকে বরণ করে নিতে মাননীয় প্রতিমন্ত্রী মহোদয়ের নির্দেশনায় তারাকান্দা উপজেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ- সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, সরকারি বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা ও কর্মচারিগণ সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশা এবং সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ফুলেল শুভেচ্ছা ও ক্রেস্ট দিয়ে বরণ করে নেন।সেই সাথে করোনা সহ উপজেলার বিভিন্ন সমস্যার আশু সমাধানকল্পে নিরলসভাবে কাজ করার জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার জান্নাতুল ফেরদৌস কে ফুলেল শুভেচ্ছা ক্রেস্ট দিয়ে অভিনন্দন জানানো হয়।মাননীয় প্রতিমন্ত্রী মহোদয়ের বিশেষ বরাদ্দে ও নির্দেশনায়  উপজেলা পরিষদের ভবনের এবং অফিসের  সুন্দর্যবর্দ্ধন কাজগুলো সবাইকে ঘুরিয়ে দেখান উপজেলা চেয়ারম্যান ও নির্বাহী অফিসার।

সম্ববর্ধনায় এক সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার জান্নাতুল ফেরদৌস আর সঞ্চলনা করেন,তারাকান্দা উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সুযোগ্য সাধারন সম্পাদক সকলের প্রিয়ভাজন ব্যাক্তি আলহাজ্ব বাবুল মিয়া সরকার। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান এডভোকেট ফজলুল হক,বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সভাপতি বাবু প্রদীপ কুমার চক্রব্রর্তী রনু ঠাকুর, সহ-সভাপতি মেজবাহ উল আলম রুবেল চৌধুরী, যুগ্মসম্পাদক শামসুল আলম,এ,কে,এম আজাহারুল ইসলাম সরকার,উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান ও সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম নয়ন, মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান সালমা আক্তার কাকন, সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যক্ষ  জামাল উদ্দিন, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক এবং তারাকান্দা উপজেলা বণিক সমিতি ও প্রেসক্লাবের সভাপতি নূরুজ্জামান সরকার বকুল,ফজলুল হক মন্ডল,শরাফ উদ্দিন তারাকান্দা উপজেলা যুবলীগের  আহবায়ক আঃ মান্নান, যুগ্ম-আহবায়ক বিপ্লব চৌধুরী, ছাত্রলীগের সভাপতি রাকিব হাসান মাযহারুল প্রমূখ। এ সময় বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগের সভাপতিগণ সহ অঙ্গ সংগঠনের  বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

নিজের অনুভূতি জানাতে গিয়ে নবাগত এসিল্যান্ড তাহমিনা আক্তার বলেন, আমি খুব সুভাগ্যবান যে, মাননীয় প্রতিমন্ত্রী মহোদয় এর এলাকায় রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব পালনের সুযোগ পেয়েছি, ভূমি ব্যবস্থাপনা একটি জটিল বিষয়,দোয়া ও সহযোগীতা চাই যাতে আমার উপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করতে পারি। আমাকে সম্বর্ধিত করায় আপনাদের সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।

তারাকান্দা উপজেলাকে মডেল উপজেলায় রূপান্তরিত করতে যা যা করার দরকার তাই করার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছি। জনদূর্ভোগ, গণউপদ্রপ এসব থেকে পরিত্রাণ পেতে নবাগত এসিল্যান্ড সহ বিভাগীয় সকল কর্মকর্তাগণ কে নিয়ে নিরলসভাবে কাজ করবেন জানিয়ে অনুষ্ঠানটির সমাপ্তি করেন ইউএনও জান্নাতুল ফেরদৌস।পরে উপজেলা চেয়ারম্যান এডভোকেট ফজলুল হক সাহেব নিজেই বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করে দেশের সমৃদ্ধি কামনা করেন।

শেয়ার করুনঃ
আপনার মতামত লিখুন: