ঢাকা, ২৪ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার, ২০২০ || ৯ আশ্বিন ১৪২৭
 নিউজ আপডেট:

সামাজিক কাজে নারীরাও থেমে নাই 

ক্যাটাগরি : সবারকথা বিশেষ প্রকাশিত: ২৪৬৮ঘণ্টা পূর্বে   ৭৬৩


সামাজিক কাজে নারীরাও থেমে নাই 

দেব বিশ্বাস,যশোর প্রতিনিধিঃ নারী পুরুষের  সমান অধিকার প্রতিষ্ঠিত করতে বেগম রোকেয়া আপ্রান চেষ্টা করে গেছেন, দিন দিন তার চেষ্টার সফলতা অর্জন করতে দেখা যাচ্ছে ৷ কর্মক্ষেত্রে পুরুষের সমতালে নারীদের ও যোগদান করতে দেখা যাচ্ছে ৷ বর্তমানে বিশ্বে নারী পুরুষ সকলক্ষেত্রে হাতে হাত রেখে কাজ করে চলেছেন ৷ যার কারনে প্রতিটা পরিবার ও দেশ, আজ উন্নয়নের দিকে অগ্রসর হচ্ছেন ৷ 

তবে প্রতিটা মানুষ নিজের পরিবারের সুখের জন্য কর্মজীবনে প্রবেশ করেন ৷ এরই ভিতরে বিশ্বে কিছু মানুষ নিজের পরিবারের সুখের কথা শুধু ভাবেন না নিজের পরিবারের সুখকে অসহায় মানুষের সাথে ভাগাভাগি করে নিতে পছন্দ করেন ৷ এমনি কি নিজের পরিবারে আর্থিক সমস্যা থাকলেও তারা ভিক্ষা করে হলেও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেন৷ তেমনি একঝাঁক তরুণী যশোর জেলাতে রাত দিন অসহায়দের জন্য কাজ করে চলেছেন ৷

করোনা সমস্যার ভিতরেও তারা অনলাইনে অসহায় মানুষের জন্য রক্তযোগার করা সহ বিভিন্ন ভাবে মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছেন ৷নিজেদের জীবনের মায়া ত্যাগ করে চলমান  করোনা সমস্যার ভিতরে তারা প্রতিনিয়ত বাসা থেকে বের হয়ে পথে প্রান্তে অসহায় মানুষের হাতে খাবার তুলে দিচ্ছেন ৷ যা লক্ষ লক্ষ কোটিপতি মেয়েদের দ্বারা সম্ভাব নয়, এদের ভিতরে বেশি ভাগে মেয়েই মধ্যবিত্ত ও নিম্মবিত্ত পরিবারের ,ধনীর দুলালীদের দেখা সামাজিক কাজে মেলে না বললেই চলে৷

একজন মেয়ে হয়ে আজ দিনরাত অসহায়ের জন্য কাজ করে চলেছেন আপনার নিজেকে নিজের কাছে কেমন লাগছে এমন প্রশ্নের উত্তরে যশোর বনিফেস সামাজিক সংগঠনের সদস্য ফাতেমা আক্তার সবারকথাকে বলেন, কেমন লাগে সেটা বলে বুঝাতে পারব না আসলে অসহায় মানুষের হাতে যখন একবেলার খাবার তুলে দিই তখন তাদের মুখের হাসি দেখলে মনের ভিতরে যে অনুভুতি সৃষ্টি হয় তা বলে শেষ করা যাবে না ,আর সামাজিক কাজ করতে টাকা লাগে না মহৎ একটা মন থাকলেই সম্ভাব ৷

একই প্রশ্নের উত্তরে  যশোর এফএসডিও বিধবা ফাউন্ডেশনের সদস্য  ফাবিহা বুশরা বলেন, মানুষের সেবা করাটা সকলের কপালে জুটে না আর টাকা থাকলেই মানুষের সেবা করা সম্ভব না, মানুষের সেবা করতে হলে হৃদয়ে মানবতা থাকতে হবে, আমাদের নিজেদের পরিবারে সমস্যা আছে জেনেও আমরা যতটুকু পারি অসহায় মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করি যতদিন বেঁচে থাকবো অসহায় মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করবো৷ 

সামাজিক কাজে লিপ্ত সকল তরুণীদের  একটায় চাওয়া, যে সব মেয়েরা পড়াশুনার পর বাকি সময়টা ঘুরে,আড্ডা দিয়ে পার করেন তারা যেন তাদের অবসর সময়টা অসহায়দের মুখে হাসি ফোঁটানোর কাজে ব্যবহার করেন ৷

শেয়ার করুনঃ
আপনার মতামত লিখুন: